শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

ইফতারের পর ফের সড়কে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ২২৭ বার পঠিত

রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায় আবারও সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে তারা পুনরায় সড়ক অবরোধ করেন। এতে ইফতারের সময় কিছুক্ষণের জন্য শুরু হওয়া যান চলাচল আবার বন্ধ হয়ে যায়। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৭টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত নিউ মার্কেট এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক ছিল। এরপর শিক্ষার্থীরা ঢাকা কলেজের মূল ফটকের সামনে রাস্তার দুই পাশে অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করেন। বর্তমানে তারা সেখানে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন।

রাস্তায় আছেন নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীরাও। তারা নিউ সুপার মার্কেট সংলগ্ন ফুট ওভার ব্রিজের নিচে অবস্থান নিয়ে আছেন। সেখানে কাছেই অবস্থান নিয়ে আছে পুলিশ। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিউ মার্কেট এলাকায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঢাকা কলেজের সব হল বন্ধ ঘোষণা করে মঙ্গলবার বিকেলের মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। যদিও এ নির্দেশনা মানেননি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। সন্ধ্যার পরও ঢাকা কলেজের হলে শিক্ষার্থীদের দেখা গেছে। হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে অনড় রয়েছেন তারা।

এর আগে আজ সারাদিন নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের  শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষে ঢাকা কলেজের শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হন। নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরাও অনেকে আহত হন। তাদের বেশিরভাগই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এছাড়া কিছু শিক্ষার্থী বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। অন্তত দুজন শিক্ষার্থীর অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, সোমবার রাতের হামলার প্রতিবাদে আজ সকালে মানবন্ধন করতে গেলে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। এরপরই দুপক্ষে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়াসহ ব্যাপক সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষের মাঝে দোকানিরা কিছু শিক্ষার্থীকে বেদম পিটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

এদিকে সংঘর্ষের খবর সংগ্রহে গিয়ে নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের ন্যক্কারজনক হামলার শিকার হয়েছেন ঢাকা পোস্টসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের অন্তত ৯ জন সাংবাদিক। তাদের ৪ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুর করেন ব্যবসায়ীরা

রাজধানীর আনোয়ার খান মেডিকেল কলেজ থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে একজন মুমূর্ষু রোগীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। দুপুর ১২টার দিকে নিউমার্কেটের সামনে পৌঁছালে শিক্ষার্থীরা অ্যাম্বুলেন্সটি থামান। কিন্তু ভেতরে রোগী থাকায় অ্যাম্বুলেন্সটি ছেড়ে দেন তারা।

এরপর অ্যাম্বুলেন্সটি চন্দ্রিমা মার্কেটের সামনে পৌঁছালে ব্যবসায়ীরা আটকে দেন। এ সময় অতর্কিতভাবে গাড়িটির ওপর হামলা শুরু করেন তারা। গাড়ির চালক কাগজপত্র দেখিয়ে মুমূর্ষু রোগীর কথা বলে অনুনয় বিনয় করলেও ক্ষ্যান্ত হননি ব্যবসায়ীরা। এ সময় ভেতরে থাকা রোগী বাঁচার আকুতি জানালেও তা শোনেননি কেউ।

নিউমার্কেট এলাকায় ইন্টারনেট বন্ধ

এদিকে বিকেল ৪টা ২৫ মিনিট থেকে রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায় মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। যদিও এ বিষয়ে বাংলাদেশ পুলিশ ও বিটিআরসির সঙ্গে যোগাযোগ করেও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিউ মার্কেট এলাকায় অবস্থানরত ঢাকা পোস্টের ৫ জন প্রতিবেদকই জানিয়েছেন শেষবিকেল থেকে তারা সেখানে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছেন না। নিউ মার্কেট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, নীলক্ষেত, এলিফ্যান্ট রোড, সায়েন্সল্যাব মোড়ে হঠাৎ মোবাইলের থ্রি জি ও ফোর জি গতির ইন্টারনেট চলছে না। ডাটা অন করলেও কোনো কাজ হচ্ছে না। মোবাইলের ফ্রিকোয়েন্সি অনেকটাই দুর্বল পাওয়া যাচ্ছে। স্পষ্টভাবে ফোনে কথাও বলা যাচ্ছে না। তবে যাদের স্থানীয়ভাবে ওয়াইফাই সংযোগ রয়েছে তারা ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছেন।

উল্লেখ্য, সোমবার রাত ১২টার দিকে রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায় কথা কাটাকাটির জেরে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী ও দুই ব্যবসায়ী আহত হন। আহত হন বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও।

এরপর মঙ্গলবার সকালে আবারও সংঘর্ষে জড়ান শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা। মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে তারা ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকেন। ছাত্রদের অনেকে হেলমেট পরে হাতে লাঠি নিয়ে সংঘর্ষে জড়ান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV