বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

একবার ধর্ষণ করে হত্যার পর মেয়েটিকে আবার ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়

শ্রীপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২০ মার্চ, ২০২২
  • ৬৩৯ বার পঠিত

মাগুরায় নিহত স্কুলছাত্রীকে প্রথমে মুখ চেপে ধর্ষণ করা হয়। বাঁচার আকুতি জানালে ধারালো ব্লেড দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়। এরপর দ্বিতীয়বার ধর্ষণের চেষ্টা করে। গ্রেফতার হাসান শেখকে (২৩) সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে র‌্যাব-৬ এর কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান।

রোববার (২০ মার্চ) সকাল ১০টায় মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ৩ নং শ্রীকোল ইউনিয়নের হাট শ্রীকোল গ্রামে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৬ এর কোম্পানি কমান্ডার এম নাজিউর রহমান সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

ভিডিও নিউজ দেখুন এখানে

গ্রেফতার হাসান শেখ (২৩) শ্রীকোল গ্রামের মো. ফজলু শেখের ছেলে। সে পেশায় নছিমন চালক।

প্রসঙ্গত, ১৭ মার্চ জাতীয় শিশু দিবসে বাড়ির পাশে নদীর চরে নিজেদের রসুনের খেত দেখতে গিয়ে নিখোঁজ হয ওই স্কুলছাত্রী। পরের দিন দুপুরে স্থানীয়রা বাড়ি থেকে মাত্র ৩০০ গজ দূরে নদীর পাশে একটি বাঁশ বাগানের নিচে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। থানা পুলিশকে খবর দিলে তারা ওই দিন বিকেলে তার মরদেহ উদ্ধার করে

ঘটনার পর থেকে পুলিশ, সিআইডি ও র‌্যাবের কর্মকর্তারা গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করাসহ হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত কারণ  খুঁজে বের করতে মাঠে নামে। অবশেষে শনিবার র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা হাসান শেখকে (২৩) আটক করতে সক্ষম হয়। র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হাসান হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ঘটনার লোমহর্ষক বর্ণনা দেয়।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব জানায়, আগে থেকেই হাসান ওই স্কুলছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের পরিকল্পনা করে। কারণ সে নদীর ধারে মাঝে মাঝে গাঁজা সেবন করত। ঘটনার দিন ওই স্কুলছাত্রীকে একা পেয়ে কৌশলে রসুনখেত থেকে মুখ চেপে পাশের বাঁশ বাগানের নিচে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে ধারালো ব্লেড দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে।

ইউটিউবে দেখুন নিউজটি

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV