মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৯:৪৭ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

গোবর থেকে চপ্পল, ব্যাগ বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন রিতেশ, বার্ষিক আয় ৩৬ লক্ষ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৮ মার্চ, ২০২২
  • ২৩০ বার পঠিত

শহর থেকে বেরিয়ে একটু গ্রামের দিকে গেলে রাস্তার ধারে গোবর অবশ্যই দেখতে পাবেন। এই গোবর সুখী কখনো ঘটে তৈরি করে জ্বালানির কাজে লাগানো হয় আবার কখনো এটাকে কৃষি জমিতে সার হিসেবে ব্যবহার করা হয়। যেহেতু ভারতে গরুর সংখ্যা বেশ ভালো তাই এখন গোবর-গোমূত্র ইত্যাদিকে ব্যবহার করে নানা উপকরণ তৈরীর ব্যবসার (Business) উপর জোর দেওয়া হচ্ছে।

ছত্রিশগড় এর রাজধানী রায়পুরের এক ব্যক্তি গোবর থেকে এমন সমস্ত জিনিস তৈরি করে ফেলেছেন যা পুরো ভারতকে অবাক করেছে। দৈনিক ভাস্কর এর রিপোর্ট অনুযায়ী ঋতেশ আগারওয়াল নামের এক ব্যক্তি গোবর থেকে ব্যাগ প্রতিমা ইট মানিব্যাগ আবির ইত্যাদি বানিয়ে ফেলেছেন। শুধু এই নয় ঋতেশ আগারওয়াল গোবর থেকে চপ্পল বানিয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন।

২০২২ এর বাজেট অধিবেশনে ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল এক ব্যাগ নিয়ে বিধানসভায় হাজির হয়েছিলেন। জানিয়ে দি, ওই ব্যক্তির ঘরে তৈরি ছিল যা ঋতেশ আগারওয়াল বানিয়েছিলেন। রিতের এবং উনার সংস্থা এক পেহল ১০ দিনের পরিশ্রমের পর ওই ব্যাগ বানিয়েছিলেন। রিতেশ জানিয়েছেন এক কিলো গোবর থেকে ১০ টি চপ্পল- তৈরি সম্ভব।

যদি বৃষ্টিতে তিন-চার ঘণ্টা ধরে বসেই চপ্পল গুলি ভিদেও যায় তাতেও তা নষ্ট হবেনা চপ্পল রোদে শুকিয়ে পুনরায় ব্যবহার করা সম্ভব। গোবর থেকে চপ্পল আবির মানিব্যাগ তৈরি শেখার পর তিনি স্থানীয় লোকজন কেউ এই কাজের সাথে যুক্ত করে দিয়েছেন এবং তাদের রোজগারের ব্যবস্থা করেছেন। রিতেশ রায়পুর থেকেই ২০০৩ সালে গ্রাজুয়েট পাশ করেছেন। বেশ কয়েকটি কোম্পানিতে রিতেশ কাজ করেছিলেন কিন্তু কোথাও তার মন টেকেনি।

মিডিয়াকর্মীদের সাথে বার্তালাপ করতে গিয়ে বলেন আমি ও সমাজের জন্য কিছু করতে চেয়েছিলাম কিন্তু কি করব ভেবে উঠতে পারছিলাম না। রিতেশ আরও বলেন আমি দেখতাম রাস্তাঘাটে গরু-বাছুর ঘুরে বেড়াই অনেক সময় প্লাস্টিক জাতীয় কিছু খেয়ে তাদের মৃত্যুর মুখোমুখি হতে হয়, আবার অনেক গোরু রাস্তায় দুর্ঘটনার শিকার হয়। তাই আমি ২০১৫ সালে গোশালার এর সাথে যুক্ত হয়ে গো-সেবায় নেমে পড়ি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV