মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৪৬ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

তরুণ-তরুণীকে পেটালেন ইউপি সদস্য, ভিডিও ভাইরাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৯ মার্চ, ২০২২
  • ৩০৯ বার পঠিত

যশোরের এক ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীদের হাতে তরুণ-তরুণীকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীরা গা ঢাকা দিয়েছেন বলে জানা গেছে। যশোর কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের আব্দুলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার নির্যাতনের দুটি ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি সবার নজরে আসে।

প্রধান অভিযুক্ত আনিচুর রহমান যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। নির্যাতনের শিকার ওই তরুণ-তরুণী যশোর সদর উপজেলার আব্দুলপুর গ্রামের বাসিন্দা। তারা একে অন্যের নিকট আত্মীয় বলে স্বজনেরা জানিয়েছেন।

তরুণ-তরুণীকে নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্যসহ ৪ জনের নামে শুক্রবার ভুক্তভোগী তরুণীর বাবা বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নির্যাতনের শিকার তরুণীর বাবা বলেন, গত ১৫ মার্চ সন্ধ্যায় আমার মেয়ে আত্মীয় এক যুবকের বাইসাইকেলে চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের এনায়েতপুর গ্রামে ওয়াজ মাহফিল শুনতে যায়। ফেরার পথে তাদের বাইসাইকেল গতিরোধ করে অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগে এনে দুইজনকেই অশালীন কথাবার্তা বলতে থাকে ইউপি সদস্য আনিচুর রহমান, তার সহযোগী আইয়ুব আলী, ভুট্টো, আব্দুল আলীমসহ অজ্ঞাত ৪-৫ জন। একপর্যায়ে তাদের দুইজনকে একটি দোকানের ভিতরে নিয়ে বেধড়ক মারপিট শুরু করে। খবর পেয়ে তাদের দুইজনকে বাঁচাতে গেলে আমাকেও ধাক্কা দিয়ে তারা চলে যায়। তিনি অভিযোগ করেন, তাদের দুইজনকে বিনাদোষে অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে। এই নির্যাতনকারীদের বিচার চাই।

১ মিনিট ২৯ সেকেন্ড এবং ৪৪ সেকেন্ডের দুটি ভিডিওটিতে দেখা যায়, একটি দোকানে অর্ধশতাধিক মানুষের উপস্থিতিতে তরুণীকে এলোপাতাড়ি জুতাপেটা করছে ইউপি সদস্য আনিচুর রহমান। ঐ তরুণী মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ইউপি সদস্যের পাশে থাকা কয়েক যুবক লাথিও দেন। অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগে তরুণীর সঙ্গে থাকা যুবককেও এলোপাতাড়ি মারধর করছে ইউপি সদস্য ও তার সঙ্গে থাকা কয়েকজন যুবক।

আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েক যুবক তরুণীর হাত ও পা ধরে রেখেছে। এ সময় ইউপি সদস্যের সঙ্গে থাকা আইয়ুব, ভুট্টো ও আব্দুল আলীমসহ ৩-৪ জন লাঠি দিয়ে তরুণীকে হাতে ও পায়ের গোড়ালিতে বেধড়ক মারপিট করছে। পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ঐ যুবককেও একইভাবে লাঠি দিয়ে পেটান তারা। নির্যাতনের শিকার ঐ তরুণ-তরুণী বারবার ছেড়ে দেওয়ার কথা বললেও নির্যাতনকারীরা কর্ণপাত তো করেননি, উপরন্তু বেধড়ক মারপিট করতে দেখা গেছে ভিডিও দুটিতে। অনেককে দুই তরুণ-তরুণীর মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার কথাও বলতে শোনা গেছে ভিডিও দুটিতে।

তরুণ-তরুণীকে নির্যাতনের যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, সেই নির্যাতনকারী ইউপি সদস্য আনিচুর রহমান সেটা নিশ্চিত করে চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দাউদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ভিডিওটি ভাইরাল হলে আমি মোবাইলে ইউপি সদস্যের সঙ্গে কথা বলেছি সত্য ঘটনা জানার জন্য। মেয়ে ও ছেলেটি যদি অন্যায় করেও থাকে তাহলে এভাবে নির্যাতন করা উচিত হয়নি। ইউপি সদস্য আসলেই অন্যায় করেছেন।’

চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘আমি ভুক্তভোগী মেয়ে ও ছেলের পরিবারের সদস্যদের ইউনিয়ন পরিষদে আসতে বলেছিলাম। এর সুষ্ঠু বিচারের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলাম। কিন্তু এখন পর্যন্ত অভিযুক্ত ও ভুক্তভোগী কেউ আমার কাছে আসেননি।’

যশোর কোতয়ালী মডেল থানার ওসি তাজুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়েছে। মারধরের ভিডিও দেখে চিহ্নিত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের আটকের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV