সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...
শিরোনাম :
আসাদুজ্জামান আসাদের যত ‘অপকর্ম’ শ্রীপুরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাবেক ছাত্র নেতা মিজানুর রহমান মাগুরাবাসিকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কাজী রফিকুল ইসলাম মাগুরাবাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মাগুরা জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক আলী আহম্মদ পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মাগুরা জেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক সাকিব পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন শরিয়ত উল্লাহ বঙ্গবন্ধু ল’টেম্পল কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল প্রাথমিক শিক্ষকদের অনলাইন বদলি আবেদন শুরু শনিবার চট্টগ্রামে ১০ জুয়াড়ি গ্রেফতার

পিস্তল হাতে ছবি ভাইরাল, গা ঢাকা দিলেন ছাত্রলীগ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৭ মে, ২০২২
  • ৫০১ বার পঠিত

পিস্তল হাতে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের নেতা আবু বক্কার সিদ্দিকী ওরফে রাতুলের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। এ ঘটনার পর তিনি গা ঢাকা দিয়েছেন। তাকে খুঁজছে পুলিশ।

রাতুল পাবনার সুজানগর উপজেলার মানিকহাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এবং সদ্য বিলুপ্ত পাবনা জেলা ছাত্রলীগের কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক। তিনি নাজিরগঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মোস্তফা কামাল বাবুর ছেলে। তাদের বাড়ি মানিকহাট ইউনিয়নের গাবগাছী গ্রামে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, রাতুল পাবনার সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের ছত্রছায়ায় নিজ এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে থাকেন।

সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দলের সাথে থাকা সুবিধাভোগী আবু বক্কার সিদ্দিকী রাতুল এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পিস্তল দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে আসছেন।

আবু বক্কার সিদ্দিকী ওরফে রাতুলের সঙ্গে ঢাকা পোস্টের পক্ষ থেকে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। তবে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তার ফেসবুক আইডিও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফিরোজ আলী ঢাকা পোস্টকে বলেন, সে সন্ত্রাসী কার্যক্রম করুক বা না করুক সেটি আমাদের দেখার বিষয় নয়। আমাদের যেহেতু কমিটি নেই, সেজন্য সাংগঠনিক কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। কেন্দ্রকেও জানাতেও পারছি না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তার বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নেবে আমরা মেনে নেব। যদি কমিটি থাকত তাহলে আমরা ব্যবস্থা নিতে পারতাম। ব্যক্তির দায় সংগঠন নেবে না।

সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হান্নান জানান, ফেসবুকে ছবিটি পোস্টের পরপরই আমরা খবর পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুত সময়ের মধ্যে অস্ত্রধারী ওই যুবককে আইনের আওতায় আনা হবে। আমরা তাকে খুঁজছি। ইতোমধ্যে তাকে আটকের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs