সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৫৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

প্রেমিকাকে দলবেঁধে ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২০৬ বার পঠিত

টঙ্গীতে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে এক নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ভুক্তভোগী নারীর দায়ের করা মামলায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে মিরাশপাড়া নদীবন্দর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে ভুক্তভোগী নারী বাসায় ফিরে জাতীয় জরুরি পরিষেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে বিষয়টি জানালে পুলিশ অভিযুক্ত তিন যুবককে আটক করে।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা হলেন- টঙ্গীর মিরাশপাড়া এলাকার জাবেদ মিয়ার ছেলে শাওন (২০), নবীন হোসেনের ছেলে নাদিম হোসেন (২৪) ও গাজী সালাউদ্দিনের ছেলে গাজী সাকিবুজ্জামান সিয়াম (২১)।

ভুক্তভোগী নারী জানান, গ্রেপ্তারকৃত শাওন তার পূর্বপরিচিত। কয়েক মাস আগে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে মিরাশপাড়া এলাকার একটা ভাড়া বাসায় থাকতেন তিনি। তবে সোমবার সকালে ফোন করে শাওন তার সঙ্গে দেখা করতে চান। শাওনের কথামতো দেখা করতে গেলে তাকে একটি ঘরে নিয়ে যান। পরে সেখানে চোখ বেঁধে শাওনসহ তিনজন তাকে দলবেঁধে ধর্ষণ করে। একই সঙ্গে শাওন মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে। কাউকে ঘটনা জানালে ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়।

টঙ্গী পূর্ব থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাব্বির হোসেন জানান, গ্রেপ্তারকৃত শাওনের সঙ্গে ভুক্তভোগী নারীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সোমবার সকালে ভুক্তভোগীকে ফোন করে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায় শাওন। পরে শাওন ও সহযোগীরা দলবেঁধে ভুক্তভোগীকে ধর্ষণ করে।

তিনি আরও জানান, ভুক্তভোগী নারী বাসায় ফিরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে বিষয়টি জানালে তিন যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ধর্ষণের পর মোবাইলে ভিডিও ধারণের কথা স্বীকার করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV