বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

বায়েজিদের মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে চলে জুয়া, পতিতাবৃত্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ, ২০২২
  • ২৭৩ বার পঠিত

মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র। যেখানে মাদকাসক্তদের বিশেষ তদারকি ও চিকিৎসার মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফেরানো হয়। কিন্তু চট্টগ্রামের বায়েজিদ থানা এলাকায় মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে বসে জুয়ার আসর, চলে অসামাজিক কার্যকলাপ।

‘নীল মাদকাসক্তি নিরাময় ও চিকিৎসা কেন্দ্রে’ এমন কর্মকাণ্ড ঘটে আসছিল দীর্ঘদিন ধরে।

স্থানীয়রা বলছে, মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রের নামে নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডে ব্যবহার হতো এই মাদকাসক্তি নিরাময় ও চিকিৎসা কেন্দ্র।

বুধবার (২ মার্চ) রাতে ওই মাদকাসক্তি নিরাময় ও চিকিৎসা কেন্দ্রে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় জুয়ার সরঞ্জামসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৩ বান্ডেল তাস ও নগদ ৯ হাজার ৪৮০ টাকা জব্দ করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক মো. ইমরান হোসেন মিলন (৩৭) ও একই এলাকার মো. লুৎফুর রহমান (৪৯), মোহাম্মদ রাশেদ (৪৩) ও মো. মোবারক হোসেন (৩৮)।

জানা যায়, বায়েজিদ এলাকার শেরশাহ কলোনীর ২৭ নম্বর প্লটের চার তলা ভবনের নিচতলা ভাড়া নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পরিচালিত হয়ে আসছে নীল মাদকাসক্তি নিরাময় ও চিকিৎসা কেন্দ্রে নামের প্রতিষ্ঠানটি। যার লাইসেন্স নং ০১/১৮। পরিচালক ছিলেন মো. ইমরান হোসেন মিলন নামের একজন।

বায়েজিদ থানার ওসি (তদন্ত) মো. খাইরুল ইসলাম বলেন, ‘তথ্য ছিল সেখানে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে। সে তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে জুয়ার সরঞ্জামসহ তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। একটি মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে পুলিশ অভিযান চালাবে না- তাদের এমন ধারনা ছিল তাদের। সেই ধারনা থেকে তারা ওখানে অসামাজিক কাজ করছিল।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV