বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

মাদক দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টায় ২ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২২ মার্চ, ২০২২
  • ২৬৭ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় স্বপন কুমার সিংহ নামে এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে ফাঁসানোর চেষ্টার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে কমলগঞ্জ থানার দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করেছেন পুলিশ সুপার।

তারা হলেন, কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সিরাজুল ইসলাম ও কনস্টেবল আফসার উদ্দীন।

রোববার (২১ মার্চ) রাতে মৌলভীবাজার পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে এক অফিস আদেশে তাদের থানা থেকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের মধ্যভাগ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:

রুয়েটে চাকরি পেলেন উপাচার্যের ভাই-বোন, শ্যালক ও গৃহকর্মী!

সপরিবারে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন সাংবাদিক

গয়েশপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

একবার ধর্ষণ করে হত্যার পর মেয়েটিকে আবার ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়

অভিযোগে জানা যায়, গত শনিবার (২০ মার্চ) রাতে কমলগঞ্জ উপজেলার মধ্যভাগ বাজারের নিউ মেডিসিন কর্ণার নামে এক ফার্মেসিতে কমলগঞ্জ থানার এসআই সিরাজুল ইসলাম সিরাজ ও কনস্টেবল আফসার উদ্দীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নাপা সিরাপের প্যাকেটে দুটি ইয়াবা রেখে ফার্মেসি মালিক স্বপন কুমার সিংহকে আটকের চেষ্টাকালে উত্তেজিত স্থানীয় জনতা দুই পুলিশ সদস্যকে অবরোধ করে রাখে। এ সংবাদ পত্র-পত্রিকায় প্রকাশ হয় পাশাপাশি ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ওই নিরীহ ব্যবসায়ীকে হয়রানির বিষয়টি তদন্ত করে দোষী পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী।

শুধু পুলিশ সদস্যদের প্রত্যাহার করে পেছনের মদদদাতাদের চিহ্নিত না করায় স্থানীয় সচেতন মহলের মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দেখা দিয়েছে। পুলিশের এমন কান্ডের বিষয়টি এলাকায় আলোচিত হলে পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হয় এবং পুলিশের সম্পৃক্ততা থাকার সত্যতা পাওয়ায় রোববার রাতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত তিন পুলিশ সদস্যের মধ্যে এসআই সিরাজুল ইসলাম ও কনস্টেবল আফসার উদ্দীনকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করার আদেশ দেওয়া হয়। দুই পুলিশ সদস্য সোমবার সকালেই পুলিশ লাইনে যোগদান করেন বলে জানা গেছে।

সোমবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যায় কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়ারদৌস হাসান দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করার বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV