বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...
শিরোনাম :
বিদ্যুতের কর্মচারীর বিরুদ্ধে মাদক সেবনের অভিযোগ; বেরিয়ে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য মাগুরায় আদালতের আদেশ অমান্য করে স্থাপনা ভেঙে দেওয়াল নির্মাণের অভিযোগ শ্রীপুরে এতিমখানা জামে মসজিদের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন শ্রীপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ শ্রীপুরে দলীয় ব্যানারে সরকারি খাল দখল চট্টগ্রামে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা মাগুরায় ন্যাশনাল পিপলস পার্টি’র আহ্বায়ক কমিটি গঠন লক্ষ্মীপুরে বিলুপ্তির পথে ‘ভেসাল জাল’ সাংবাদিক ফরিদ ও সাংবাদিক মনজুর মা আর নেই, সর্বস্তরে শোকের ছায়া বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাংচুরকারীদের রেহাই নেই: কাউন্সিলর জসিমের হুঁশিয়ারি

লক্ষ্মীপুরে নোমান-রাকিব হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৩৩ বার পঠিত

লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল নোমান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিব ইমামকে হত্যার ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জেলা পুলিশ সুপার মো. মাফুজ্জামান আশরাফ গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন: সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের নন্দিগ্রামের মৃত আবদুল মন্নানের ছেলে মো. সবুজ (৩১) ও মো. তাজল ইসলামের ছেলে আজিজুল ইসলাম বাবলু (৩২), সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের বশিকপুর গ্রামের মো. সেলিম পাটোয়ারীর ছেলে ইসমাইল হোসেন ও দত্তপাড়া বাজার কমিটির সভাপতি মনির হোসেন রুবেল।

এর আগে ঘটনার ২৭ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) রাতে নিহত নোমানের বড় ভাই স্থানীয় বশিকপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান বাদী হয়ে আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম জিহাদীসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে ৩৩ জনকে আসামি করে চন্দ্রগঞ্জ থানায় মামলা করেন।
মামলার বাদী নিহত নোমানের বড় ভাই বশিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান জানান, ছোট ভাইকে হারিয়ে শোকাহত থাকায় মামলা রুজু করতে দেরি হয়েছে। সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জিহাদী ইউপি নির্বাচনে হেরে পরিকল্পিতভাবে তার ভাই যুবলীগ নেতা নোমান ও ছাত্রলীগ নেতা রাকিবকে হত্যা করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবার বিচারের দাবি করেন তিনি।
পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) রাতে সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের নাগেরহাট সড়কে সন্ত্রাসীরা যুবলীগ নেতা নোমান ও ছাত্রলীগ নেতা রাকিবকে গুলি করে হত্যা করে। এ সময় তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও মোবাইল নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। গুলির শব্দ শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় লোকজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। মাথায় ও মুখে গুলিবিদ্ধ হওয়ায় দুজনই মারা যান। ঘটনার ২৭ ঘণ্টা পর আওয়ামী লীগ নেতা কাশেম জিহাদীসহ ৩৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

নিহত নোমান সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের বশিকপুর গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। তিনি জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। আর রাকিব বশিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা ও একই ইউনিয়নের নন্দীগ্রামের রফিক উল্যার ছেলে এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।

লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার মো. মাহফুজ্জামান আশরাফ জানান, চন্দ্রগঞ্জ থানায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জিহাদীকে প্রধান আসামি করে ১৮ জনের নাম উল্লেখসহ মোট ৩৩ জনের নামে হত্যা মামলা হয়েছে। হত্যার রহস্য উদ্ঘাটনে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট পুলিশের একটি টিম গঠন করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV