শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০১:১৬ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

শ্রীপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ

শ্রীপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬৭ বার পঠিত

মাগুরার শ্রীপুরে আদালতের আদেশ অমান্য করে মামলার আর্জিতে বর্নিত জমিতে পাঁকা ঘর নির্মাণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার সব্দালপুর ইউনিয়নের নোহাটা গ্রামের জিল্লু মোল্লা ও চন্টু মাল্লার বিরুদ্ধে।

গত ৪ আগষ্ট শুক্রবার নোহাটা গ্রামে সরজমিনে গিয়ে ও মামলার বিবরণে জানা যায়, নোহাটা গ্রামের আব্দুল ওহাব বাদি হয়ে তার প্রতিবেশী জিল্লু মোল্লা ও চন্টু মোল্লার বিরুদ্ধে মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার ৬৯ নং নোহাটা মৌজার আর এস ১৩৭ নং খতিয়ানের ৪১০১ নং দাগের ১২৩ শতক জমির মধ্যে ২০ শতক ও ৪১০২ নং দাগের ৩৪ শতকের মধ্যে ০৪ শতক জমি, মোট ২৪ শতক জমি নিয়ে মাগুরা বিজ্ঞ জজ আদালতে ১৬২/২০ নং এবং মাগুরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে শ্রীপুর-পি:-৪১১/২০২৩ নং পৃথকভাবে মামলা দায়ের করেন। মাগুরা জজ আদালতের নিষেধাজ্ঞা আদেশ থাকার সত্বেও পুনরায় ঘর নির্মাণ করায় মাগুরার জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ১৪৪/১৪৫ ধারা মামলার উদ্ভব হয়। উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালত শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে তফসিল ভুক্ত সম্পত্তির উপর শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার নির্দেশ দেন। কিন্তু এরই মধ্যে বিবাদীরা আদালতের আদেশ অমান্য করে বিভিন্ন সময়ে পাঁকা ঘর নির্মাণ করার অপচেষ্টা চালিয়ে আসছে।

এ বিষয়ে আব্দুল ওহাবের মেয়ে রাবেয়া খাতুন বলেন, এই জমি নিয়ে আদালতে দীর্ঘদিন ধরে মামলা চালিয়ে আসছি। আদালত উক্ত জমিতে স্থিতিবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। জিল্লু মোল্লা ও চন্টু মোল্লা আদালতের আদেশ অমান্য করে বেশ কয়েকবার উক্ত জমিতে পাঁকা ঘর নির্মাণের চেষ্টা চালিয়ে আসছে।

এ বিষয়ে চন্টু মোল্লার স্ত্রী কামরুন নাহার বলেন, কোর্টের আদেশ পাওয়ার পর থেকেই কাজ বন্ধ রয়েছে। বাড়িতে যাতায়াতের সমস্যা হওয়ায় রাস্তার মাটি সরানো হয়েছে মাত্র।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV