শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৩৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি :
Welcome To Our Website...

শ্রীপুরে আধিপত্যের জেরে সংঘর্ষ, বাড়িঘর ভাঙচুর-লুটপাট, আহত ৩

শ্রীপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১৬ বার পঠিত

মাগুরার শ্রীপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সাবেক ও বর্তমান মেম্বার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে উপজেলার গয়েশপুর ইউনিয়নের বাগবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের ঘটনায় মামুন শেখ (২৫), রাজিব মোল্লা (২৫), বাদশা শেখ (৪০) আহত হয়। আহত তিনজনই বর্তমান মেম্বার করিম শেখের সমর্থক বলে জানা যায়। এ সময় করিম মেম্বারের সমর্থকেরা সাহেব আলী গ্রুপের ১০ টি বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এ ঘটনার পর গ্রামজুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সাবেক মেম্বার সাহেব আলী গ্রুপের হেকমত ও বর্তমান মেম্বার করিম শেখের সমর্থিত বাবুলের মধ্যে সামান্য বিষয় নিয়ে শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে মাঠের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। পরে সন্ধ্যায় বাবুলের দোকানে মাঠের বিষয় নিয়ে আবারো বাগবিতণ্ডা হয়। এ সময় সাহেব আলী গ্রুপের লোকজন বাবুলকে সকালে কেন কথা-কাটাকাটি করলো জানতে চায়। এ সময় বাবুল ও হেকমত মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় সাহেব আলী গ্রুপের লোকজন বাবুলের দোকান ভাংচুর করে। এ সংবাদ পাওয়ার পর করিম মেম্বারের লোকজন দেশিয় অস্ত্রসহ সাহেব আলী গ্রুপের ওসমান শেখ, নাসির মণ্ডল, হাবিবুর রহমান ধলু, নবুয়ত শেখ, জহুর খান, ইলিয়াস মণ্ডল, মিজান মণ্ডল, শাকিল মণ্ডল, মঞ্জু মণ্ডল, শরিফুল ইসলাম, হেকমত শেখসহ প্রায় ১৫ টি বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়।

শাকিল মণ্ডলের স্ত্রী উর্মি বেগম জানান, আমার স্বামী বাড়িতে নেই। আমি বাচ্চার জন্য রান্না করেছিলাম। সে খাবার আমার বাচ্চার মুখেও দিতে পারিনি। করিম মেম্বারের লোকজন বাড়ি ভাঙচুর করে সব তছনছ করে দিয়েছে।

নাসির মণ্ডলের স্ত্রী রোকেয়া বেগম জানান, আমি কিস্তির টাকা তুলে ঘর করেছি। এখনো কিস্তির টাকা শোধ হয়নি। করিম মেম্বারের লোকজন আমার ঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে। আমি এর বিচার চাই।

এ বিষয়ে সাবেক মেম্বার সাহেব আলী জানান, আমরা কোন কিছুই জানিনা। করিম মেম্বারের লোকজন পরিকল্পিতভাবে আমার লোকজনের প্রায় ১৫ টি ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে।

এ বিষয়ে বর্তমান মেম্বার করিম শেখ জানান, প্রথমে তারা বাবুলকে মারধর করে। তার দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। এ সূত্র ধরেই আমাদের লোকজন ওদের কিছু বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে।

এ বিষয়ে শ্রীপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ তাসমীম আলম জানান, সংবাদ পাওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Deshjog TV